ভাবাবেগে আঘাত করার অধিকার কে দিয়েছে! হুঙ্কার তুলে আমির-অক্ষয়ের ছবিকে বয়কটের ডাক ভারতীয় রেসলারের

বলিউড (Bollywood) নিয়ে এক আজব ট্রেন্ড শুরু হয়েছে দেশবাসীর মধ্যে। সাধারণ মানুষ আর বলিউডের ছবি দেখতে চাইছেন না। লাগাতার ফ্লপ হয়ে চলেছে একের পর বলিউডি সিনেমা। একই সময়ে দক্ষিণের ছবিগুলো সারা বাজার দখল করে নিচ্ছে। ঠিক এই সময়েই ১১ আগস্ট মুক্তি পেতে চলেছে আমির খানের (Aamir Khan) লাল সিং চাড্ডা আর অক্ষয় কুমারের (Akshay Kumar) রক্ষাবন্ধন। কিন্তু দুটি ছবিকেই ট্যুইটার বয়কটের ডাক দিয়েছেন নেটিজেনরা।

আমির খানের পুরনো বক্তব্য টেনে এনে তার ছবি না দেখতে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন পুরো দেশবাসী। আর এদিকে অক্ষয় কুমারেরও একই অবস্থা। তার পুরনো ছবি ‘OMG’ এর প্রচারের সময় বলা কিছু কথা ভাইরাল করে দিয়েছেন নেটিজেনরা। আর দুই অভিনেতার পুরনো বক্তব্যকে ঘিরে সারা দেশেই চলছে বলিউডকে বয়কটের ডাক। আর ঠিক সেইসময় ভাইরাল হয়েছে WWE খ্যাত রিঙ্কু সিং ওরফে বীর মহানের একটি ভিডিও বার্তা।

সারা বিশ্বের সামনে ভারতের নাম উঁচু করেছেন WWE প্লেয়ার রিঙ্কু সিং (Rinku Singh)। যাকে সারা বিশ্ব চেনে বীর মহান নামে। ভারতের গর্ব এই প্লেয়ার এবার ডাক দিয়েছেন বিভিন্ন সিনেমা এবং ওয়েবসিরিজকে বয়কট করার। এই হিন্দুবীর সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রকাশ করা ভিডিওতে কোনো সিনেমার নাম না নিয়েই আক্রমণ করেছেন।

তিনি মঞ্চে যেমন আক্রমণাত্মক, শত্রুকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেননা। তেমনই এবার বলিউডকে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিলেন। কোনো সিনেমা বা অভিনেতার নাম না করেই তিনি বলেন যে, “ধর্ম, বিশ্বাস, বর্ণ, ইতিহাস নিয়ে মজা করে এমন চলচ্চিত্র এবং ওয়েবসিরিজের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন। আপনার ওপর হওয়ার অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে গর্জে উঠুন, দেশ এবং ধর্ম সর্বোপরি।”

রিঙ্কু রাজপুত সোশ্যাল মিডিয়ার সেই ভিডিওতে আরো বলেন যে, “ধন্য ভারত, আমি রিঙ্কু রাজপুত। এখন আমেরিকায় দেড়টা। থাকতে পারছি না। সোশ্যাল মিডিয়ায়, অনেক সিনেমা ও ওয়েব সিরিজের ক্লিপ দেখছি। যাতে প্রকাশ্যে আমাদের দেব-দেবীদের অপমান করা হয়। আমাদের ভারতীয় সংস্কৃতি ও সভ্যতা নিয়ে ঠাট্টা করা হয় সর্বত্র। দেশের সংখ্যাগরিষ্ট মানুষের অনুভূতি ও বিশ্বাস নিয়ে ঠাট্টা করার অধিকার আপনাদের কে দিয়েছে? যে দেশে বাস করছেন সেই দেশেরই সংস্কৃতি ও সভ্যতাকে নিয়ে ঠাট্টা করছেন? এবং অশ্লীলতা দেখিয়েছেন? ”

ভিডিওর শেষাংশে তিনি আরো বলেন যে, “আমি আপনাদের সকল দেশবাসীকে অনুরোধ করছি, একসাথে আসুন, জনগণের অনুভূতি নিয়ে খেলতে নামা সিনেমা এবং ওয়েব সিরিজকে বর্জন করুন। মনে রাখবেন দেশ এবং ধর্ম সর্বাগ্রে। হর হর মহাদেব!” স্বভাবতই তার মতো আন্তর্জাতিক তারকা যখন এরকম বার্তা দেবেন তখন দেশে বলিউডের প্রতি বিদ্বেষ আরো বাড়বে। এখন দেখার কেমন চলে ওই সিনেমা দুটি।

Leave a Comment